৬০০ কোটি আয়, তবে লাভ পাননি নির্মাতারা!

মুক্তবার্তা ডেস্ক:বলিউডপ্রেমীরা অপেক্ষায় রয়েছেন বাহুবলি-দ্য কনক্লুশনের জন্য। ২০১৫ সালের বাহুবলি-দ্য বিগিনিং সিনেমার সিক্যুয়েল এটি। মুক্তির পর থেকেই বক্স অফিসে রেকর্ড গড়তে থাকে বাহুবলি-দ্য বিগিনিং। শেষ পর্যন্ত বক্স অফিসে ৬০০ কোটি রুপির উপরে আয় করে সিনেমাটি। কিন্তু সিনেমাটি থেকে নাকি কোনো লাভই পাননি নির্মাতারা। বাহুবলি-দ্য কনক্লুশন সিনেমাটি মুক্তির পরই লাভবান হবেন তারা।

বিষয়টির ব্যাখ্যা দিয়ে সিনেমাটির পরিবেশক অক্ষয় রেথি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘দুটো সিনেমার বাজেট, প্রোডাকশন ও মার্কেটিং খরচ প্রায় ৪৫০ কোটি রুপি। পুরো বাহুবলি ফ্র্যাঞ্চাইজি দুটি সিনেমা করছে। নির্মাতারা বেশিরভাগ অর্থই সেট এবং লোকেশনের পেছনে খরচ করেছেন। এমনকি বাহুবলি-দ্য বিগিনিং মুক্তির আগেই বাহুবলি-দ্য কনক্লুশন সিনেমার কিছু দৃশ্য শুটিং করতে হয়। তাই পুরো লাভের হিসাব দুটো সিনেমা মিলেই করতে হবে।’

একমাত্র করণ জোহরই কী বাহুবলি-দ্য বিগিনিং সিনেমা থেকে লাভবান হয়েছেন- এমন প্রশ্নের উত্তরে অক্ষয় রেথি বলেন, ‘করণ জোহরই একমাত্র হিন্দি সংস্করনের পরিবেশক ছিলেন। সুতরাং তিনি একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ দিয়েছিলেন এবং তা তুলেও নিয়েছেন। বাহুবলি-দ্য কনক্লুশন সিনেমাটি মুক্তি পেলে নির্মাতা অবশ্যই লাভবান হবেন। এমনকি এ ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই লাভবান হবে। দুটো সিনেমার প্রদর্শন স্বত্ব থেকে প্রায় ৬০০ কোটি রুপি আয় হবে। তাই নিমার্তা কমপক্ষে ১৫০-২০০ কোটি রুপি লাভ করবেন।’

আগামী ২৮ এপ্রিল মুক্তি পাচ্ছে চলতি বছরের বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা বাহুবলি-দ্য কনক্লুশন। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন এসএস রাজামৌলি। সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন- প্রভাস, রানা দাগ্গুবতি, আনুশকা শেঠি, তামান্না ভাটিয়া, সত্যরাজ, রামায়া কৃষ্ণাসহ অনেকে।

Related posts

Leave a Comment