‘সন্ত্রাসী তৎপরতা শক্ত হাতে দমন করছে বাংলাদেশ’

প্রবাসী ডেস্ক: পর্তুগালের সাবেক এমপি ও সাউথ এশিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোরামের ডাইরেক্টর পাওলো কাছাকা বেলজিয়ামে এক সেমিনারে জঙ্গি, সন্ত্রাসবাদ ও সহিংস চরমপন্থা মোকাবিলায় বাংলাদেশের নীতি ‘জিরো টলারেন্স’। শুধু তা-ই নয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক কোনো জঙ্গি বা সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর কর্মতৎপরতা শক্ত হাতে দমন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের প্রশংসা করেন।

শান্তির পক্ষে বাংলাদেশ সরকার তথা বিশ্বশান্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘জিরো টলারেন্স’ কর্মসূচির সাফল্য বিশ্বময় ছড়িয়ে দিতে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ব্রাসেলস প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত ব্রাসেলস এন্ড ঢাকা সলিডারিটি ফর পিস্ নামক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন এবং উপস্থিত সকলের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

গত মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায় বেলজিয়ামে ও বাংলাদেশে সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুস্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে সেমিনার শুরু হয়।

বেলজিয়ামের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতন এর উপস্থাপনায় সেমিনার সভাপতিত্ব  করেন বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি লতিফ শহিদুল হক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ ফোরাম এর সভাপতি আনসার আহমদ উল্লাহ, সাউথ এশিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোরামের সহকারী প্রোগ্রামার নূরা বাবা লোব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের প্রবাসী কল্যাণ সম্পাদক হাসনাত মিয়া, ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক খোকন শরীফ, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ বিদ্যুৎ বড়ুয়া, নেদারল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম, স্পেন আওয়ামী লীগ নেতা রিজভি আলম, বিকাশ চন্দ্র বড়ুয়া।

সেমিনারের আগে বেলজিয়ামে হামলার এক বছর পূর্তিতে বেলজিয়ামের মালভিক ষ্টেশনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতারা। সেমিনারে এ সময় বাংলাদেশে ও বেলজিয়ামে সন্ত্রাসীদের হামলার বিভিন্ন চিত্র ও ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।

এসময় বক্তারা ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রতিনিধি ও সাংবাদিকদের সামনে বাংলাদেশ সরকারের সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে গৃহীত নানা পদক্ষেপ তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশ সরকারের প্রতি ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সমর্থনকে সাধুবাদ জানান।

Related posts

Leave a Comment