যুক্তরাষ্ট্রকে পিয়ংইয়ংয়ের হুঁশিয়ারি

মুক্তবার্তা ডেস্ক:কোরীয় উপত্যকায় মার্কিন রণতরী মোতায়নে কোন ভ্রুক্ষেপ নেই উত্তর কোরিয়ার। বরং যুক্তরাষ্ট্রকে হুঙ্কার জানিয়ে পিয়ংইয়ং তাদের ‘সামরিক হিস্টিরিয়ার’ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন। নইলে প্রত্যাঘাতের মুখোমুখি হতে হবে।

শনিবার উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল সাংয়ের ১০৫তম জন্মবার্ষিকী ‘সূর্যের দিন’ পালনের উপলক্ষ্যে রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে সামরিক প্যারেড পরিদর্শন করছেন দেশটির নেতা কিম জং উন। এই প্যারেড অনুষ্ঠানে উনকে অনেক উৎফুল্ল দেখা গেছে।

উত্তর কোরীয় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘যুক্তরাষ্ট্র ব্ল্যাকমেল করছে৷ তাদের নির্মমভাবে আঘাত করা হবে।’

আজ , শনিবার উত্তর কোরিয়া পরমাণু পরীক্ষা করে কি না, সে দিকেই নজর গোটা বিশ্বের। কিম আবারো পরমাণু পরীক্ষার তোড়জোড় শুরু করেছে বলে অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্রের। এই আশঙ্কায় কোরীয় উপদ্বীপে নৌবহর মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷

যুক্তরাষ্ট্রের এই যুদ্ধ প্রস্তুতিতে মোটেও চিন্তিত নয় উত্তর কোরিয়া৷ দেশটির সরকারি সংবাদসংস্থা কেসিএনএ সেনাবাহিনীর এক বিবৃতির বরাত দিয়ে জানায়, এটি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আর এক দফা হুঙ্কার৷ ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি হুমকি দিচ্ছেন৷ তিনি উত্তর কোরিয়াকে ব্ল্যাকমেল করার চেষ্টা করছেন৷ দক্ষিণ কোরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটি ও সে দেশের প্রেসিডেন্টের নিবাস কয়েক মিনিটের মধ্যে ধূলিসাৎ করে দেওয়া সম্ভব।

হুঁশিয়ারি দিয়ে উত্তর কোরিয়ার সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত। মার্কিন রণতরী কোরীয় উপদ্বীপের যত কাছে আসবে, তাদের উপর আঘাত ততটাই নির্মম হবে৷

আজ শনিবার বিশ্বের নজর থাকবে উত্তর কোরিয়ার দিকে৷ আজ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল সুংয়ের জন্মদিন৷ প্রতি বছর ১৫ এপ্রিল সামরিক শক্তি দেখায় পিয়ংইয়ং৷ এ দিন ষষ্ঠবার পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা করতে পারে কিমের দেশ, এই আশঙ্কা রয়েছে৷ সে ক্ষেত্রে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্রও। এই পরিস্থিতিতে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই শুক্রবার আবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন৷ সোমবার থেকে পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে বেজিংয়ের মধ্যে বিমান চলাচল বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করেছে এয়ার চায়না৷

Related posts

Leave a Comment