ভেনেজুয়েলায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভে কিশোর ও নারীর মৃত্যু

মুক্তবার্তা ডেস্ক:ভেনেজুয়েলায় প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো সরকার বিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে গুলিতে অন্তত তিনজন নিহত হয়েছেন।এদের মধ্যে একজন নারী ও একজন কিশোর।

বুধবার কলম্বিয়া সীমান্তের কাছে সান ক্রিস্টোবালে ওই নারী ও রাজধানী কারাকাসে কিশোরটি প্রাণ হারায়। নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ও বিরোধী রাজনৈতিকদের মুক্তির দাবিতে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। বৃহস্পতিবারও সরকার বিরোধী বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বিরোধীরা। টানা সরকার বিরোধী আন্দোলনের কারণে লম্বা সময় ধরে দেশটিতে অস্থিরতা দেখা দিতে পারে বলে ধারণা করছেন পর্যবেক্ষকরা।

একই সময়ে প্রেসিডেন্টের পক্ষেও রাস্তায় নামে সমর্থকরা

প্রেসিডেন্ট মাদুরো পুলিশের ওপর হামলা ও দোকানে লুটপাট চালানোর জন্য বিরোধীদেরকে দায়ী করে বলেন, ৩০ জনের বেশি লোককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

যদিও অধিকার আন্দোলন গোষ্ঠী পেনাল ফোরাম জানিয়েছে, বুধবার সারা দেশে মোট ৪০০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার রাতে বিরোধীদলীয় নেতা হেনরিক ক্যাপ্রিলেস বিক্ষোভের ডাক দিয়ে বলেন, ‘একই জায়গায়, একই সময়। আজকের জমায়েতে দশ লাখ হলে আগামীকাল আরো বেশি হবে।’

বিক্ষোভের সুযোগে চলছে ব্যাপক লুটপাট

এদিকে কারাকাসে সরকার সমর্থকরা একটি পাল্টা সমাবেশ করছে। তেল সম্পদে সমৃদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও ভেনিজুয়েলায় কয়েক বছর ধরে মুদ্রাস্ফীতি, অপরাধ ও নিত্যপণ্যে সংকট দেখা দিয়েছে।

সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারীরা এই আন্দোলনের দিনটিকে ভেনিজুয়েলার ‘দ্বিতীয় স্বাধীনতা দিবস’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। ভেনিজুয়েলায় সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারী ও পুলিশের মধ্যে কয়েক সপ্তাহ ধরে সংঘর্ষ চলছে। চলতি মাসে দেশটিতে সরকার বিরোধী আন্দোলন শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা অন্তত সাত জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়াও বহু লোক আহত হয়েছেন।

Related posts

Leave a Comment