‘ভারত সফর সফল হয়নি,প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে’

মুক্তবার্তা ডেস্ক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর যে সফল হয়নি সেটা তার নিজের বক্তব্যেই প্রমাণ হয়েছে বলে দাবি করেছেন  বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে ভারত থেকে কোনো কিছু আদায় করতে পারবে না।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে দৈনিক আমার দেশ পত্রিকা বন্ধের চার বছর পূর্তিতে এক সমাবেশে ফখরুল এ কথা বলেন। এই সমাবেশের আয়োজন করে ‘আমার দেশ পরিবার’।

গত শুক্রবার চার দিনের সফরে ভারত যান প্রধানমন্ত্রী। তিনি ফেরেন গত সোমবার। এই সফরে বেশ কিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক হলেও তিস্তার পানিবণ্টনে চুক্তি হয়নি।

বিএনপি এই সফর নিয়ে সমালোচনামূখর দুই কারণে। এর একটি তিস্তা চুক্তি না হওয়া এবং দ্বিতীয়টি প্রতিরক্ষা বিষয়ে সমঝোতা স্মারক সই। দলের নেতাদের অভিযোগ, এই সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা খাত ভারতের কাছে উন্মুক্ত হয়ে গেল।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, সরকার যা কিছু বাকি ছিল তার সবই ভারতের কাছে বেচে দিয়েছে আর পাঁচ বছর পর কাগজপত্র করে দেবে তারা।

ফখরুল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ভারত সফর করে আসলেন কিন্তু সব পত্রপত্রিকায় একই সুর যে বাংলাদেশের কোনো আশা পূরণ হয়নি। বাংলাদেশের মানুষ নূন্যতম যে পানির হিস্যা চেয়েছিলো তাও হয়নি। আর প্রধানমন্ত্রী নিজেই বলেছেন ‘কুছ তো মিলা’। তাই কি পেয়েছি আমরা, তা তিনিই বলেছেন।

ফখরুল বলেন, ‘বাংলাদেশের যা পাওয়া উচিত ছিলো তা আমরা পাইনি। কিন্তু সরকার তো বলতেছে দুই দেশের সম্পর্ক নাকি উচ্চতর পর্যায়ে আছে।’

বাংলাদেশে জঙ্গি তৎপরতার জন্য ভারতের দিকে সন্দেহ মির্জা ফখরুলের। তিনি বলেন, ‘যারা ১৯৭১ সালের পর বাংলাদেশকে একটি নিয়ন্ত্রিত রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করেছিল। তারা তাদের নীলনকশা বাস্তবায়ন করতে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। এ কারণেই মাহমুদুর রহমানকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে থাকতে হয়েছে, আমার দেশ, চ্যানেল ওয়ান বন্ধ হয়েছে।’

এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে রাজপথে নামতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

Related posts

Leave a Comment