প্রধান শিক্ষকের কু-প্রস্তাবে স্কুল ছাড়ছে ছাত্রীরা

মুক্তবার্তা ডেস্ক: বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চলের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। এতে বিদ্যালয়ে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে অধিকাংশ ছাত্রী।

অভিভাবক ও এলাকাবাসী অভিযুক্ত শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বলছেন, তদন্ত চলছে, দোষী প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার চরদিঘাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণির একাধিক ছাত্রীর অভিযোগ প্রধান শিক্ষক সাহার আলী প্রায়ই তাদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করেন।

কখনও কখনও টাকার লোভ দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দিতেন এবং তার ও রুমে যেতে বলতেন। এতে করে তারা বিদ্যালয়ে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।

অভিভাবক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যরা বলছেন, প্রধান শিক্ষক থাকাবস্থায় ছাত্রীরা বিদ্যালয়ে যেতে ভয় পায়। আর বিদ্যালয়ে কর্মকর্তা শিক্ষিকারা স্বীকার করলেন ছাত্রীদের উপস্থিতি কমে যাওয়ার কথা।

বগুড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল আলম জানালেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত করছেন। দোষী প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

চরদিঘাপাড়া প্রাথমিক সরকারি বিদ্যালয়ে সাহার আলী প্রধান শিক্ষক হিসেবে ১৮ বছর ধরে চাকরি করছেন। বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৭০ জন। এর মধ্যে ৩৮ জন ছাত্রী।

Related posts

Leave a Comment