প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ, সিটিং সার্ভিস নামে চলছে পকেট কাটা

মুক্তবার্তা ডেস্ক:যাত্রীদের পকেট কাটার সিটিং সার্ভিস বন্ধে ঘোষণা দিয়ে তা বাস্তবায়ন করেনি পরিবহন মালিকরা। মালিকদের ঘোষণা ছিল ১৫ এপ্রিল থেকে সব বাস চলবে বিআরটিএর নির্ধারিত ভাড়ায়। সিটিং, স্পেশাল বা অন্য কোনো নামে অন্য কোনো অযুহাতে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হবে না। কিন্তু কোনো রুটেই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হতে দেখা যায়নি।

এই পরিস্থিতিতে পরিবহন মালিক সমিতির সঙ্গে বৈঠক ডেকেছে সড়ক পরিবহন সংস্থা বিআরটিএ। বিকাল তিনটায় এই বৈঠক হবে।

যাত্রী হয়রানি ও ভাড়া নৈরাজ্যের সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে গত ৪ এপ্রিল রাজধানীতে সিটিং সার্ভিস বন্ধ ঘোষণা করে পরিবহন মালিকরা। সড়ক প‌রিবহন মা‌লিক স‌মি‌তির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনা‌য়েতুল্লাহ এ ঘোষণা দেন ১৫ এপ্রিল থেকে রাজধানীতে কোনো সিটিং সার্ভিস, গেইট লক, বিরতিহীন কিংবা স্পেশাল সার্ভিস নামের কোনো গণপরিবহন  থাকবে না।

সব বাস বিআরটিএ নির্ধারিত চার্ট অনুসারে ভাড়া আদায় করবে বলেও ঘোষণা দেন তিনি। অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া বন্ধে ভাড়ার তালিকা বাসের ভেতর দৃশ্যমান স্থানে টানিয়ে রাখার কথাও জানান তিনি।

এই ঘোষণা বাস্তাবায়ন হয়নি কেন, জানতে চাইলে খন্দকার এনায়েতউল্লাহ আগের অবস্থান থেকে কিছুটা সরে এসে দাবি করেন, ১৫ তারিখ পর্যন্ত সময় আছে তাদের। তিনি বলেন, ‘সিটিং সর্ভিসের অনিয়ম, অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও বিভিন্ন অনিয়মের কারনে আমরা মালিক সমিতির পক্ষ থেকে সিটিং সার্ভিস বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের বেধে দেওয়া সময় আজকে থেকে শেষ হচ্ছে। যারা এই সিদ্ধান্ত মানবে না তাদের বিরুদ্ধে আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আগামী কাল থেকেই ব্যবস্থা নেয়া শুরু হবে।’

Related posts

Leave a Comment