জঙ্গি নিয়ে গণমাধ্যমকে সংযত হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

মুক্তবার্তা ডেস্ক:জঙ্গি নিয়ে গণমাধ্যমকে সংযত হয়ে সংবাদ প্রচারের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘জঙ্গিরা উৎসাহিত হয় এমন নিউজ পরিবেশন না করলেই ভাল হয়। গণমাধ্যমকে এ ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে।’

সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এই কথা বলেছেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি।

গত শুক্রবার ভোর থেকে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ী এলাকার আতিয়া মহল নামে বাড়িটিতে জঙ্গিবিরোধী অভিযান শুরু হয়। প্রথম দিকে অভিযানের সরাসরি সম্প্রচার করে বেসরকারি টেলিভিশনগুলো। কিন্তু পরে কর্তৃপক্ষের আহ্বানের পর সরাসরি সম্প্রচার আর করছে না টেলিভিশন চ্যানেলগুলো।

তবে অভিযান পরিচালনাকারী সেনাবাহিনী গত শনি ও রবিবার দুই দফায় ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানিয়েছে এবং এই ব্রিফিং সম্প্রচার হয়েছে সরাসরিই।

 

২০১৬ সালের ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনা শুরু থেকেই সরাসরি সম্প্রচার করেছে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলো। অভিযানে সেনাবাহিনী পাঠানো, তাদের প্রস্তুতি, কোন পথ দিয়ে কীভাবে আক্রমণ করা হবে-তার পুঙ্খানুপুঙ্খ তুলে ধরেন প্রতিবেদকরা। তবে এক পর্যায়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অনুরোধে চূড়ান্ত অভিযানের আগে সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ হয়।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা বলছেন, টিভি চ্যানেলে অভিযানের খুঁটিনাটি প্রচার হলে ভেতরে জঙ্গিরা সেসব তথ্য জেনে যায়। এতে অভিযান বাধাগ্রস্ত হয়। কেবল বাংলাদেশে নয়, ভারতের মুম্বাইয়েও তাজ হোটেলে হামলার পর ভেতরে থাকা জঙ্গিরা টিভি সম্প্রচার থেকেই বাইরের ঘটনা সম্পর্কে তথ্য পেয়েছিলেন বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

হলি আর্টিজানে একই ধরনের অভিজ্ঞতার পর বিভিন্ন স্থানে জঙ্গিবিরোধী অভিযান সরাসরি সম্প্রচার না করেনি বেসরকারি টেলিভিশনগুলো।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধি ও দলীয় নেতাকর্মীদের জঙ্গি তৎপরতা রুখতে সক্রিয় হতে এবং জনগণকে সম্পৃক্ত করতে নির্দেশ দিয়েছেন।’ তিনি বলেন, ‘মন্ত্রীদের নিজ নিজ এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের সম্পৃক্ত করে জঙ্গি প্রতিরোধে সক্রিয় হতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।’

Related posts

Leave a Comment