ইসরায়েল, জাতিসংঘ কার্যালয় বন্ধ করে চায়!

মুক্তবার্তা ডেস্ক:পূর্ব জেরুজালেমে জাতিসংঘ ও এর সহযোগী সংস্থাগুলোর কার্যালয় বন্ধ করে দেয়ার প্রস্তাব নিয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে ইসরায়েলে। গতকাল রবিবার দেশটির সংস্কৃতি ও খেলাধুলা  মন্ত্রণালয়ের এক প্রস্তাবের ভিত্তিতে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো সম্প্রতি ইসরায়েলকে ‘দখলদার শক্তি’ আখ্যা দিয়ে একটি প্রস্তাব পাস করার পরই ইসরায়েলের তরফ থেকে এই ধরনের প্রস্তাব উত্থাপিত হয়েছে। খবর আরটি নিউজের।

বৈঠকে ইসরায়েল সরকার কি সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে তা জানা যায়নি। তবে ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রতিক্রিয়া সতর্কবার্তা উল্লেখ করে বলেছে, এই ধরনের পদক্ষেপ বাস্তবায়নের সম্ভাবনা খুবই কম।

বৈঠকের আগের দিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ইসরায়েলি গণমাধ্যম হারেৎজকে জানান, পেশাদার মতামত হলো, ইসরায়েল জাতিসংঘ এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে চুক্তিতে সাক্ষর করেছে যে, জাতিসংঘের প্রধান কার্যালয়গুলো কুটনৈতিক সুবিধা পাবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই কর্মকর্তা আরো বলেছেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংস্কৃতি ও খেলাধুলামন্ত্রী মিরি রাগেভকে এই বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দেবে। কারণ তিনি  এবং একই মতাদর্শের মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এই পদক্ষেপ নিয়েছেন। আন্তর্জাতিক চুক্তির প্রয়োজনীয়তার বিষয়টিও তুলে ধরা হবে।

এই ধরনের প্রতিকূল পরিস্থিতি শুধু একটি উপায়েই এড়ানো যায়। তবে এটি প্রায় অসম্ভবই বলা যায় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘জেরুজালেম থেকে জাতিসংঘকে বহিষ্কার করার একমাত্র পথ হচ্ছে, জাতিসংঘ যদি নিজে থেকে তাদের চুক্তি ভঙ্গ করে তাদের কার্যালয় সরিয়ে নেয়।’

জেরুজালেমের ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি ধ্বংস করছে ইসরায়েল- মঙ্গলবার নির্বাহী পরিষদের বৈঠকে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব উত্থাপন করে আলজেরিয়া, মিশর, লেবানন, মরক্কো, ওমান, কাতার এবং সুদান। সেখানে ভোটাভুটিতে ২২টি দেশের সমর্থন পেয়ে প্রস্তাবটি পাস হয়। প্রস্তাবটির বিপক্ষে ভোট দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি ও ইতালিসহ মোট ১০টি দেশ।

Related posts

Leave a Comment