ইরানে খনি বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫

মুক্তবার্তা ডেস্ক:ইরানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় গোলেস্তান প্রদেশের কয়লা খনিতে শক্তিশালী বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫ জনে পৌচেছে। গতকাল বুধবার দুপুরে এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো প্রায় অর্ধশত শ্রমিক।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, খনির একটি গ্যাস পাইপ লাইন ছিদ্র হয়ে গ্যাস বেরিয়ে আসার কারণে বিস্ফোরণ ঘটেছে।

গোলেস্তান প্রদেশের জরুরি বিভাগের প্রধান সাদেক-আলী মোকাদ্দাম জানিয়েছেন, ‘আজাদশাহর শহরের কাছে অবস্থিত খনিটি থেকে ২১ শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো ১৪ শ্রমিক ভেতরে আটকা পড়ে আছেন।’

ইরানের বার্তা সংস্থা ফার্সনিউজ জানিয়েছে, আটকে পড়া ওই ১৪ শ্রমিকেরও মৃত্যু হয়েছে। ফলে এ দুর্ঘটনায় ৩৫ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

গোলেস্তান প্রদেশের জরুরি বিভাগের উপ প্রধান হামিদরেজা মোন্তাজেরি বলেন, বিস্ফোরণের পর দুর্গত শ্রমিকদের উদ্ধারের জন্য খনিতে প্রবেশকারী ২৫ উদ্ধারকর্মী গ্যাসে আক্রান্ত হলে তাদেরকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

গোলেস্তান প্রদেশের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসেইন আহমাদি জানিয়েছেন, গ্যাস বিস্ফোরণের ফলে খনিটিতে প্রবেশের টানেল ধসে পড়েছে। ফলে ধসে পড়া অংশের ভেতরে উদ্ধারকাজ চালানোর জন্য একটি বিকল্প টানেল খোড়া হচ্ছে। তবে বাইরে অংশে থাকা হতাহতদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

ইরানের কেন্দ্রীয় জরুরি বিভাগের প্রধান পির-হোসেইন কোলিভান্দ জানিয়েছেন, দুর্ঘটনায় আহত ৩০ জনকে প্রদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া, অন্তত ১২ শ্রমিককে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ দেশ ইরানের বিভিন্ন খনি থেকে ২০১৬ সালে ১৬ লাখ ৮০ হাজার টন কয়লা উত্তোলন করা হয়। রপ্তানি করার পরিবর্তে এসব কয়লার বেশিরভাগই দেশের স্টিল তৈরির কারখানাগুলোতে ব্যবহৃত হয়।

Related posts

Leave a Comment