ইফতারে যা খেলে ক্ষতি

মুক্তবার্তা ডেস্ক:সিয়াম সাধনার মাস। সারাদিনের সংযম শেষে মাগরিবের আজানের পর ইফতার। আর রোজায় ইফতার বললে আমাদের চোখে ভেসে ওঠে প্লেট ভর্তি পেঁয়াজু, বেগুনি, চপ, বাটি ভর্তি ছোলা, থালা ভরা জিলাপি আর মুড়ি মাখা। বছরের পর বছর ধরে বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি ঘরে ইফতারের মেন্যুতে চলে আসছে এসব পদ। অনেকেতো বিশ্বাসই করেন ভাজাপোড়া আর ঝাল মিষ্টি এসব খাবার ছাড়া তাদের ইফতার অসম্পূর্ণই থেকে যায়।

কিন্তু ভেবে দেখেছেন কি এই গরমে এসব খাবার কতটা নিরাপদ? সারা দিন খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকার পর ইফতার দিনের প্রথম আহার। এটা কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যে ইফতার মুখরোচক হবার চেয়েও বেশি হতে হবে স্বাস্থ্যকর। এবারের রোজায় যেহেতু গরম অনেক বেশি এবং একটানা প্রায় ১৫ ঘণ্টা ধরে রোজা রাখতে হবে।তাই এবারের রোজায় দরকার হবে বাড়তি সতর্কতা। থাকতে হবে একটু বেশি সচেতন। কেননা এসময়ে শরীরে থাকবে পানির প্রচন্ড তৃষ্ঞা এবং দরকার পড়বে শারিরীক শক্তিও। কিন্তু একটু বেছে না খেলে এদুটোর কোনোটাই ঠিক মতন পূরন হবে না। থেকে যাবে পুষ্টির ঘাটতি, আবার শরীরের উপর দিয়ে ধকলও যাবে অনেক।

যা খাবেন

এছাড়াও ইফতারের শুরুতে সবাই খেজুর খায় এটা, খুবই ভালো অভ্যাস এবং ভীষন রকম স্বাস্থ্যসম্মত। আর ইফতারে রান্না ছোলার চেয়ে কাঁচা ছোলা খাওয়া যেতে পারে। তিনি বলেন, ‘এসময়ে শরীরে প্রচুর শক্তির দরকার। যারা কাঁচা ছোলা খেতে পারেন তাদের উচিত ছোলা আগে থেকে ভিজিয়ে রেখে সেটা খাওয়া।এটি শরীরে তাৎক্ষণিক ভাবে শক্তি জোগাবে’।

ইফতারের আধা ঘণ্টা পর থেকে তিনি প্রচুর পরিমানে পানি খাওয়ার পরামর্শ দেন। সঙ্গে অন্য স্বাভাবিক খাবার খাওয়ার। এই সহজ নিয়মগুলো  মেনে চললেই রোজায় শরীর ভালো থাকবে, স্বাস্থ্যের লম্বা মেয়াদী কোনো ক্ষতি হবে না।

Related posts

Leave a Comment